অর্গানোগ্রামের বাইরে গিয়ে নতুন ইন্সটিটিউট খুলছে ইবি

প্রকাশিত: ১২:০১ অপরাহ্ণ, জুন ১৯, ২০২১ | আপডেট: ১২:৪২:অপরাহ্ণ, জুন ১৯, ২০২১ |

করোনায় বন্ধের মধ্যেই নতুন করে একটি বিভাগ ও একটি ইনস্টিটিউট খুলতে যাচ্ছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়। আজ শনিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের ১২০তম একাডেমিক কমিটির সভার আলোচ্যসূচির নয় নম্বরে এ বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধান্ত নেওয়ার প্রস্তাব রাখা হয়েছে। তবে অভিযোগ উঠেছে নতুন বিভাগ ও ইনস্টিটিউট খোলার ক্ষেত্রে মানা হচ্ছে না বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্গানোগ্রাম ও নীতিমালা।

জানা গেছে, একাডেমিক কমিটির সভায় এপ্লাইড কমিউনিকেশন ও মাল্টিমিডিয়া জার্নালিজম নামে একটি বিভাগ ও ইসস্টিটিউট অব ফিজিক্যাল এডুকেশন এন্ড স্পোর্টস সায়েন্স নামে একটি ইনস্টিটিউট খোলার বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। তবে এ বিশ্ববিদ্যালয়ের নীতিমালা অনুযায়ী নতুন বিভাগ খোলা হলে সংশ্লিষ্ট অনুষদের মিটিংয়ে আলোচনার মাধ্যমে আসতে হবে।

কিন্তু নতুন বিভাগ ও ইনস্টিটিউট খোলার ক্ষেত্রে অনুষদে কোন আলোচনা হয়নি বলে জানা গেছে। এ ছাড়াও বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্গানোগ্রামে ইসস্টিটিউট অব ফিজিক্যাল এডুকেশন এন্ড স্পোর্টস সায়েন্স নামে কোন ইনস্টিটিউট খেলার কোন প্রস্তাবনা নেই।

এ ছাড়া সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের অধীনে ম্যাস কমিউটিকেশন এন্ড জার্নালিজম নামে বিভাগ খোলার কথা থাকলেও তা পরিবর্তন করে এপ্লাইড কমিউনিকেশন ও মাল্টিমিডিয়া জার্নালিজম নামে বিভাগ খোলা হচ্ছে। ফলে নীতিমালা ও অর্গানোগ্রাম না মেনে করোনা মহামারীতে বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ অবস্থায় হঠাৎ নতুন বিভাগ খোলার বিষয়ে আলোচনা নিয়ে শিক্ষকদের মাঝে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে।

শিক্ষকদের মতে, আগামী ভর্তি পরীক্ষার বিজ্ঞপ্তি হয়ে যাওয়ার পর এখন নতুন বিভাগ খোলার আলোচনা হতে পারেনা। এই মুহূর্তে এ বিষয়ে না ভেবে শিক্ষার্থীদের পরীক্ষার বিষয়ে গুরুত্ব দেওয়া উচিৎ। আর পূর্বের শিক্ষার্থীদেরই ক্লাস করার জায়গা দিতে পারছিনা নতুন বিভাগ খোলার চিন্তা এখন কীভাবে আসতে পারে। বিশ্ববিদ্যালয়ের এক সিনিয়র শিক্ষক বলেন, ‘একটি বিভাগ খুলতে হলে আগে অনুষদে আলোচনা হতে হবে। অন্যথায় নীতিমালা লঙ্ঘন। এছাড়া বিভাগ খুলতে হলে অর্গানোগ্রাম মেনে খুলতে হবে অন্যথায় আগে সেটি পরিবর্তন করে নিতে হবে। নাহলে এটি আইনসম্মত হবে না।