বশেফমুবিপ্রবির কোষাধ্যক্ষ পদে সচিব নিয়োগ দেওয়ায় নোবিপ্রবি শিক্ষক সমিতির নিন্দা

ডিবিবি

নোবিপ্রবি প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ৪:২০ অপরাহ্ণ, মে ৮, ২০২১ | আপডেট: ৪:২০:অপরাহ্ণ, মে ৮, ২০২১ |

অবসর কালীন ছুটিতে (পিআরএল) থাকা অবস্থায় পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. আবদুল মান্নানকে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেফমুবিপ্রবি) কোষাধ্যক্ষ পদে নিয়োগ দেওয়ায় গভীর নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (নোবিপ্রবি) শিক্ষক সমিতি। একইসঙ্গে অবিলম্বে এই নিয়োগের আদেশ প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছে সংগঠনটি।

নোবিপ্রবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি প্রফেসর ড. নেওয়াজ মোহাম্মদ বাহাদুর ও সাধারণ সম্পাদক মজনুর রহমান স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেসা মুজিব বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ হিসেবে পিআরএল ভোগরত একজন অতিরিক্ত সচিব জনাব মোহাম্মদ আবদুল মাননানকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। জনাব আবদুল মাননান কোনো একাডেমিক ব্যক্তি নয়, তিনি গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের অবসরোত্তর ছুটি ভোগ করা একজন কর্মকর্তা।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে অনেক প্রথিতযশা শিক্ষাবিদ থাকা সত্ত্বেও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ও গবেষণা কার্যক্রমের সাথে অপরিচিত একজন ব্যক্তিকে কোষাধ্যক্ষ হিসেবে নিয়োগ জাতির কাছে প্রশ্নবিদ্ধ হয়েছে এবং শিক্ষক সমাজের মাঝে ব্যাপক ক্ষোভের সঞ্চার করেছে। আমরা নোবিপ্রবি শিক্ষক সমিতি বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেসা মুজিব বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ হিসেবে পিআরএল ভোগরত একজন অতিরিক্ত সচিবের বিতর্কিত নিয়োগের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই এবং অনতিবিলম্বে এই নিয়োগ বাতিলপূর্বক একজন স্বনামধন্য শিক্ষাবিদকে নিয়োগের জোর দাবি জানাচ্ছি।