বাঁশখালীতে গুলি করার মতো ঘটনা ঘটেনি : রাশেদ খান মেনন

ডিবিবি

ডেস্ক

প্রকাশিত: ৪:১৩ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ১৯, ২০২১ | আপডেট: ৪:১৩:পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ১৯, ২০২১ |

ক্ষমতাসীন ১৪ দলীয় জোটের শরিক বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন বলেছেন, চট্টগ্রামের বাঁশখালীতে এস আলম গ্রুপের মালিকানাধীন বিদ্যুৎকেন্দ্রে গুলি করার মতো ঘটনা ঘটেনি। সেখানে গুলি চালিয়ে শ্রমিক হত্যা করে পুলিশ বড় অন্যায় করেছে।

সম্প্রতি মহাপুলিশ পরিদর্শক (আইজিপি) ‘প্রয়োজনে ভারি অস্ত্র ব্যবহারের’ যে ঘোষণা দিয়েছেন তাতেও উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন এই বাম রাজনীতিক।

শনিবার (১৭ এপ্রিল) সকাল থেকে চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলার গুণ্ডামারায় এস আলম গ্রুপের ওই কয়লা বিদ্যুৎকেন্দ্রে বিভিন্ন দাবিতে বিক্ষোভ করছিলেন শ্রমিকরা। কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে পুলিশ। এক পর্যায়ে দুপুরে পুলিশের সঙ্গে শ্রমিকদের সংঘর্ষ বাধে। এতে পাঁচজন নিহত ও ৩০ জন আহত হয়।

বিক্ষোভে হতাহতদের স্বজনদের দাবি, পুলিশ বিনা উসকানিতে বিক্ষোভে গুলি চালায়। যদিও পুলিশ কর্মকর্তারা বলছেন, ‘শ্রমিকরা পুলিশের ওপর আক্রমণ করেছে, তাই পুলিশ গুলি চালাতে বাধ্য হয়েছে। পুলিশ কখনো আগে গুলি করে না।’

এ ঘটনায় একাধিক মামলা দায়ের হয়েছে। গঠিত হয়েছে তদন্ত কমিটি।

শ্রমিক নিহতের ঘটনায় প্রতিক্রিয়া জানতে চাওয়া হলে রাশেদ খান মেনন বলেন, ‘শ্রমিকরা তাদের অধিকার নিয়ে যে কোনো দাবি তুলতেই পারেন। কিন্তু পুলিশ সেখানে যেভাবে গুলি চালিয়েছে এবং পত্র-পত্রিকায় যেভাবে সংবাদ প্রকাশ পেয়েছে, তাতে অবাক হয়েছি। শ্রমিকরা পুলিশের ওপর আক্রমণ করেনি। তারা কোনো দলীয় ব্যানারেও আন্দোলন করেনি। শ্রমিকরা আন্দোলন করলে অথবা মারমুখি হলেই কি গুলি করতে হবে নাকি? আসলে বাঁশখালীতে গুলি করার মতো ঘটনা ঘটেনি।’

আপনারাও ক্ষমতাসীন জোটে আছেন, এক্ষেত্রে আপনাদের অবস্থান জনগণ কীভাবে দেখছে, জানতে চাইলে মেনন বলেন, ‘এর সঙ্গে শরিক দলের কোনো সম্পর্ক নেই। শ্রমিক এবং পুলিশের ব্যাপার। আমি স্পষ্ট করে বলছি, সেখানে গুলি চালানোর মতো কোনো ঘটনা ঘটেনি বলে মনে হয়েছে আমার। গুলি করে পুলিশ বড় অন্যায় করেছে।’

এ ঘটনায় পুলিশ এবং এস আলম গ্রুপ আলাদা মামলা করেছে, বিষয়টিতে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে তিনি বলেন, ‘পুলিশ মামলা করতেই পারে। পুলিশের বিরুদ্ধেও মামলা হতে পারে। ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত হোক। পাঁচজন শ্রমিককে হত্যা করা হয়েছে। অনেক বড় ঘটনা এটি।’

সাবেক এই মন্ত্রী আরও বলেন, ‘পুলিশের আইজিপি ড. বেনজীর আহমেদ সম্প্রতি যে বক্তব্য দিয়েছেন, তাতে আমি উদ্বিগ্ন। তিনি বলেছেন, ‘পুলিশ সর্বোচ্চ অস্ত্র প্রয়োগ করবে’। সেই বক্তব্য থেকে উৎসাহিত হয়ে এটি করা হয়েছে কি-না আমি জানি না?’