বড়াইগ্রামে ঈদের কেনাকাটার ১০হাজার টাকা দুস্থদের জন্য দিলো এক শিক্ষার্থী

ডিবিবি ডিবিবি

বড়াইগ্রাম প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ৭:১৭ অপরাহ্ণ, মে ১২, ২০২০ | আপডেট: ৭:১৭:অপরাহ্ণ, মে ১২, ২০২০ |

নাটোরের বড়াইগ্রামে মহামারী করোনাকে রুখতে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের হাতে ঈদে নতুন পোশাক কেনার জন্য জমানো ও উপবৃত্তি থেকে পাওয়া টাকা মিলিয়ে মোট ১০ হাজার টাকা তুলে দিয়েছে সাব্বির আহম্মেদ শিমুল নামে এক শিক্ষার্থী।

শিমুল উপজেলার জোয়াড়ী ইউনিয়নের খোর্দ্দকাছুটিয়া গ্রামের আব্দুস সালাম ও শিউলি বেগম দম্পতির একমাত্র সন্তান। তার বাবা খেজুরতলা বনলতা রি-ফ্যাক্টরী লিমিটেডে বালি সরবরাহকারী। সে বর্তমানে উপজেলার বনপাড়া সেন্ট যোসেফ্স উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণীর ছাত্র।

জানা যায়, স্কুলের উপবৃত্তি থেকে শিমুল কিছু পরিমাণ টাকা পেয়েছিল। এছাড়া নিজের জমানো আরো কিছু টাকা মিলিয়ে ঈদে নতুুুন জামা-কাপড়সহ কিছু শখের জিনিস কিনতে চেয়েছিল সে। কিন্তু করোনাকালে কর্মহীন অভাবী মানুষের দুঃখ-দুর্দশা দেখে শিমুল কেনাকাটার পরিবর্তে টাকাগুলো বিতরণের জন্য সিদ্ধান্ত নেয়।

সে কথা জানালে তার বাবা-মাও তাতে সম্মতি দেন। পরে মঙ্গলবার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আনোয়ার পারভেজের হাতে তার জমানো মোট ১০ হাজার টাকা তুলে দেয় শিমুল।

এ সময় সেখানে তার বাবা আব্দুস সালাম, খেজুরতলা বনলতা রি-ফ্যাক্টরী লিমিটেডের মহা-ব্যবস্থাপক শহিদুল ইসলাম শাহিন ও ব্যবস্থাপক মিরাজ হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আনোয়ার পারভেজ বলেন, তার এমন মানবিকতা নজির হয়ে থাকবে, তার দেয়া টাকা করোনা মোকাবেলায় কাজে লাগানো হবে। সরকারের পাশাপাশি সামর্থ্য অনুযায়ী সবাই এগিয়ে এলে করোনা মোকাবেলা সম্ভব হবে ইনশাল্লাহ।