ভুয়া রিপোর্ট দিয়ে মোটা অঙ্ক আদায় করতো সাহাবুদ্দিন মেডিকেল

প্রকাশিত: ৮:০৮ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ২০, ২০২০ | আপডেট: ৮:০৮:পূর্বাহ্ণ, জুলাই ২০, ২০২০ |

করোনার রিপোর্ট নেগেটিভ আসলেও পজেটিভ বলে ভর্তি রেখে মোটা অঙ্কের বিল আদায় করতো সাহাবুদ্দিন মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল।

রোববার দুপুর থেকে রাত পর্যন্ত সাহাবুদ্দিন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে অভিযান শেষে এমন তথ্যই জানিয়েছেন র‍্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. সারোয়ার আলম।

তিনি বলেন, সাহাবুদ্দিন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনা টেস্টের অনুমতি পাওয়ার আগে থেকেই করোনা পরীক্ষা করে ভুয়া রিপোর্ট দেয়া হতো। অপরদিকে গত এক বছর আগেই হাসপাতালটির লাইসেন্সের মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়ে গেছে। এসব অনিয়মের অভিযোগে হাসপাতালটি সিলগালা করা হবে। সব অপরাধের দায়ে হাসপাতালের মালিক ও সংশ্লিষ্ট জড়িতদের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা দায়ের করা হবে।

উল্লেখ্য, রোববার বিকালে অনুমোদনবিহীনভাবেই করোনার অ্যান্টিবডি টেস্ট করার অভিযোগে সাহাবুদ্দিন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপ-পরিচালকসহ দু’জনকে গ্রেফতার করে র‌্যাব।