সৈয়দ জোনায়েদ হোসেনের কবিতা “মেঘনার ভূমি”

সাহিত্য ডেস্ক ডিবিবি

ডেইলি বাংলাদেশ বার্তা

প্রকাশিত: ১০:৩৪ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৫, ২০২০ | আপডেট: ১০:৩৬:অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৫, ২০২০ |

কখনো কি গিয়েছো মেঘনার তীরে..?
যার তীরে ভেসে আসা অবিচল জলের ঢেউ,
যার বাতাসে মিশে আসা অজস্র মানুষের হাহাকার,
যার পানে ছুটে আসা অভিলাসি মানুষের চিৎকার,
যার আত্ম জলে মিশে আসে নিশ্ব প্রানের চোখের জল।
কত কুটির করে নিলে আপন!
হতভাগার শখের ভিটেটাও রাখলে না, কেড়ে নিলে সবি,
যাদের আছে তারা পেয়েছে পার, অভাগি হইল আজ উদাস কবি।
কানি কানি জমি গেছে তোমারি পেটে,
গিয়েছে কত মসজিদ মন্দির, খেয়েছো সব চেটে পুটে।

তুমি তো জলের রাজা,কি চাই তোমার,
আর কত জল ঝরলে মিটবে তোমার হাহাকার!
অভাগির ছিল না কিছু, ছিল শুধু ভিটেখানি,
তুমি কত নিষ্ঠুর, পার পায়নি ওরা থেকে তোমার হাতছানি।

রহিমের বাবার ছিল দুটো গরু, বাধিত ঐ বিলে,
তোমার হস্তক্ষেপে ঐ বিল আজ ভরিল গাংচিলে!
ছালামের মা নিশ্ব ছিল, দু মুঠো খেত কাজ করে,
তোমার তটে পায় নিগো রক্ষে এসে তার ভিটের তরে।

কি দোষ ছিল ওদের..?কেন করলে এমন…? আমি পাই নিগো ভেবে,
লোভের বসে কতটা অন্ধ হয় কুল, আজ বুঝলাম তোমায় দেখে।
দোষ কি ছিল এটাই ওদের ধরিত দুটো মাছ,
কি করবে বলো, ওদের তো খেতে, হবে বাঁচতে হবে,এটাই তো ওদের কাজ।

এটা তো অন্যায় নয়,, এটা তো তাগিদের জালা,
জীবন বাঁচাতে কত কি করতে হয়, কিন্তু ভাসায় নিতো ওরা কোনো পাপের ভেলা!

যদি এটাই হয়ে থাকে অন্যায়,তাহলে কি বলতে চাও ভুমি মানুষের অধিকার নয়..?
ঐ খোদাতো বলে দিয়াছে এই ভুমি সকলের সমবায়।।

শিক্ষার্থী,
মার্কেটিং ডিপার্টমেন্ট
জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়
২০১৯-২০২০ শিক্ষাবর্ষ।